10th-blog

সুস্বাস্থ্যে চায়ের উপকারিতা

চা প্রেমিক মানুষদের কাছে চায়ে চুমুক ব্যতীত যেন সকালই হয় না! তেমনি আবার সারাদিনের কর্মব্যস্ততার মাঝে এক কাপ চা যেন সকল ক্লান্তি দূর করে আপনাকে করতে পারে চাঙ্গা। তবে চায়ে ক্যাফেইন থাকার কারণে অতিরিক্ত চা পানে অনেকেরই ঘুমে ব্যাঘাত ঘটে থাকে। তাই ঘন ঘন চা পান অনেকে ক্ষতিকর বলে ধারণা করে থাকে। তবে চা আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য বেশ উপকারী। জাপান দেশের স্বাস্থ্য সচেতন মানুষেরাও চা পানে নিজেদের অভ্যস্ত করে তুলেছে। তাই আসুন যেনে নেয়া যাক সুস্বাস্থ্যের জন্য চায়ের উপকারিতাসমূহ। 

১। ক্যান্সার থেকে সুরক্ষা

চায়ে এক ধরণের অ্যান্টি–অক্সিডেন্টের উপস্থিতি আছে। যা আপনার দেহকে ক্যান্সার প্রতিরোধক হিসেবে তৈরি করবে। তাই প্রতিদিন চা পানের অভ্যাস আপনাকে সুরক্ষা দিতে পারে ক্যান্সার নামক প্রাণঘাতী রোগ থেকে।

২। ক্লান্তি দূর করে

অনেক কাজ করার পর চায়ের কাপে এক কাপ চুমুক যেন সব ক্লান্তি ধুয়ে মুছে দেয়। তবে এ ক্লান্তি যে কেবল শারীরিক ক্লান্তি তা ভাবলে ভুল হবে। গ্রিন টি মানসিক ক্লান্তি দূর করে মানসিক প্রশান্তি প্রদানে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে।

৩। ডায়াবেটিকস এবং হৃদরোগের ঝুঁকি কমায়

আমরা জানলাম গ্রিন টি স্বাস্থ্যের জন্য যেমন উপকারী, আপনার মনের জন্যও তেমনি সমানভাবে উপকারী। প্রতিদিন গ্রিন টি পান করলে হার্ট এট্যাকের ঝুঁকি কমায়। এছাড়াও এটি  ডায়াবেটিকসের জন্যও বেশ উপকারী। 

Source: Delish

৪। মাথা ব্যাথা বা মাইগ্রেনের ব্যাথা কমায়

চায়ে উপস্থিত অ্যান্টি–অক্সিডেন্ট ব্রেইনে রক্ত চলাচল বৃদ্ধি করে। ফলে প্রচন্ড মাথা ব্যাথা থেকে স্বস্তি মেলে। মাইগ্রেনের তীব্র ব্যাথায় আরাম পেতে চা পান করতে পারেন।

৫। শ্বাসকষ্ট এবং হাঁপানি থেকে  সুরক্ষা

চায়ে উপস্থিত থিওফাইলিন ও থিওব্রোমিন শ্বাসকষ্ট এবং হাঁপানি থেকে সুরক্ষা দেয়। তাই রেগুলার চা পান আপনাকে রিফ্রেশমেন্টের পাশাপাশি রাখবে সুরক্ষিত।

৬। বিভিন্ন রোগ প্রতিরোধ করে

আদা, লেবু, মধু দিয়ে গরম চা, ঠাণ্ডা-কাশি-জ্বর-সর্দি ইত্যাদি রোগ থেকে রেহাই দেয়। এবং গলা ব্যাথায়ও আরাম মেলে।

Source: Harvard TH Chan School of Public Health

আপনার পছন্দের চা অর্ডার করুন এখানেঃ https://shobuy.com.bd/product-category/tea/

Leave A Comment

You must be logged in to post a comment