109c6186-3905-4c4b-b354-c31a252dd0b0

ইউটিউব থেকে আয় করা সম্ভব যে উপায়ে

ইউটিউব থেকে আয় করতে চান? বর্তমানে লক্ষ লক্ষ মানুষ ঘরে বসেই ইউটিউবে আয় করছে। আপনার চারপাশে থাকা অনেককেই হয়তো দেখে থাকবেন, ভিডিও তৈরি করে ইউটিউব থেকে আয় করছে। তাদের দেখে হয়তো অবাকও হয়ে থাকবেন। যে, ইউটিউব থেকে কিভাবে অর্থ উপার্জন করা সম্ভব? তবে এ নিয়ে আপনাকে আর আকাশ কুসুম চিন্তা করতে হবে না। আপনিও চাইলে ইউটিউব থেকে উপার্জন করতে পারেন। তাই আসুন জেনে নেয়া যাক, Youtube থেকে আপনি কিভাবে টাকা আয় করতে পারবেন।

বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে

দিনের অধিকাংশ সময়ই আমাদের কাটছে অনলাইনে। কখনো অফিসের কাজ করে, কখনো বা শপিং করে, আবার কখনো ইউটিউবে শিক্ষণীয় বা বিনোদনমূলক ভিডিও দেখে। বর্তমান করোনাকালে ঘরে বসে সময় কাটাতে ইউটিউবে ভিডিও দেখার সংখ্যা আরও বেড়েছে। নতুন নতুন রান্নার ভিডিও দেখে নতুন রাঁধুনি হয়েছেন অনেকে। আবার কেউ কেউ ইউটিউবার হয়ে নতুন আয়ের মাধ্যম গড়ে তুলেছেন। কেউ আবার হচ্ছেন উদ্যোক্তা। ইউটিউবে সাধারণত আমরা বিনা মূল্যে ভিডিও দেখে থাকি। তবে বিনা মূল্যে ভিডিও দেখে আয় হয় কিভাবে? এ প্রশ্ন নিশ্চয়ই আমাদের অনেকের মাথায় খেলেছে।

ইউটিউবে ভিডিও চলাকালীন সময় আমরা ভিডিওর শুরুতে, মাঝে কিংবা শেষে বিভিন্ন বিজ্ঞাপন দেখে থাকি। কখনো কয়েক সেকেন্ড দেখে বিজ্ঞাপনটি স্কিপ করে পুনরায় ভিডিওতে ফিরে যাওয়া যায়। কখনো আবার পুরো বিজ্ঞাপনটি আমাদের দেখতে হয়। এছাড়াও ইউটিউব ওপেন করলে উপরে নিচে চারপাশে আমরা অনেক রকমের বিজ্ঞাপন দেখতে পাই। ইউটিউব থেকে আয় মূলত সেই বিজ্ঞাপন থেকেই আসে।

স্পন্সরশিপের মাধ্যমে

বর্তমানে ইউটিউবারের সংখ্যা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। অনেক ইউটিউবাররাই তাদের ইউটিউব ভিডিও তে বিভিন্ন কোম্পানির সঙ্গে চুক্তি করে তাদের পণ্য রিভিউ করে বা পণ্য নিয়ে ভিডিও করে থাকে। এতে সেই কোম্পানির মার্কেটিংও হয়ে যায়। অধিকাংশ সময়ই এইসব ভিডিও স্পন্সর করা হয়। কখনো অর্থের বিনিময়ে, আবার কখনো পণ্যের বিনিময়ে।

আমরা দেখে থাকি ইউটিউব ইনফ্লুএন্সারা প্রায়ই এ ধরণের প্রোডাক্ট রিভিউ টাইপের ভিডিও করে থাকেন। যেমন- কোন রেস্টুরেন্টের ফুড রিভিউ করছে, কিংবা কোন বিউটি প্রোডাক্ট নিয়ে ভিডিও করছে। এভাবে স্পন্সরশিপের মাধ্যমে অর্থায়ন করা সম্ভব।

অনলাইনে নিজের পণ্য বিক্রির মাধ্যমে

ইউটিউবে ভিডিও পোস্টের পাশাপাশি একজন ইউটিউবার তার ফ্যানদের জন্য বিভিন্ন পণ্য অনলাইনে বিক্রি করতে পারে। যেমন- টিশার্ট, চাবির রিং, নোটবুক ইত্যাদি। কন্টেন্ট ক্রিয়েটর বা ইউটিউবার তার ভিডিওতে সে সকল পণ্যের বিজ্ঞাপন করতে পারে। এবং ডিস্ক্রিপশন বক্সে পণ্যের লিংক ব্যবহার করতে পারে। এতে তার আয় হবে।

Affiliate মার্কেটিং-এর মাধ্যমে

সবার প্রথমে আসুন জেনে নেই, Affiliate মার্কেটিং কি? ধরুন, আপনি অন্য কোনো কোম্পানির সাথে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন, যে সে কোম্পানির পণ্য আপনি আপনার ইউটিউব চ্যানেল থেকে প্রচার করবেন। তাই সেই পণ্যের বিবরণ এবং লিংক আপনি আপনার ডিস্ক্রিপশনে অ্যাড করে দিলেন। ফলে আপনার একাউন্টে যারা ভিজিট করবে, তারাও সে লিংকটিতে ভিজিট করে সেই পণ্যটি কিনতে পারবে। এভাবে যদি কেউ আপনার একাউন্টের ভিজিটর উল্লেখিত লিংক থেকে কিছু কিনে থাকে, তাহলে প্রতি ক্রয় থেকে আপনি কমিশন পাবেন। একেই বলে Affiliate মার্কেটিং। এভাবেই Affiliate মার্কেটিং-এর সাহায্যে আপনি আয় করতে পারবেন। যাদের একাউন্টে সাবস্ক্রাইবার বেশি থাকে, তারা এড় মাধ্যমে তাদের আয় দ্বিগুণ বা তিনগুণ বাড়াতে পারেন।

Leave A Comment

You must be logged in to post a comment